সূত্র

12 পোস্ট

ওহমের সূত্র

1826 সালে জার্মান বিজ্ঞানী ড: জর্জ সাইমন ওহম কারেন্ট, ভোল্টেজ এবং রেজিস্ট্যান্সের মধ্যে সম্পর্ক নির্ণয় করেন, এ সম্পর্কই ওহমের সূত্র নামে পরিচিত। কোন পরিবাহীর মধ্য দিয়ে সুষম উষ্ণতায় প্রবাহিত কারেন্ট ঐ পরিবাহীর দুপ্রান্তের ভোল্টেজের  সমানুপাতিক। অথবা কোন পরিবাহির ভিতর দিয়ে স্থির তাপমাত্রায় প্রবাহিত কারেন্ট ঐ পরিবাহির দুপ্রান্তের বিভব পার্থক্যের  সমানপাতিক […]

রেজিস্ট্যান্সের সূত্র

একটি নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় একটি পরিবাহীর রেজিস্ট্যান্স দৈর্ঘ্যের সমানুপাতিক, প্রস্থের বাস্তানুপাতিক এবং এর রেজিস্ট্যান্স পরিবাহি পদার্থের আপেক্ষিক রেজিস্ট্যান্সের উপর নির্ভর করে। \(\begin{align*} &\text{রেজিস্ট্যান্স} & &= R,\\ &\text{প্রস্থচ্ছেদের ক্ষেত্রফল} & &= A \text{ এবং}\\ &\text{দৈর্ঘ্য} & &= L \text{ হলে,}\\ & & R & \propto \frac{L}{A}\\ &\text{বা,} & R&= ρ\frac{L}{A}\\ &\text{এখানে,}\\ & […]

জুলের সূত্র

১৮৪১ সালে ইংরেজ বিজ্ঞানী ডঃ জেমস প্রেস্কট জুল তাপ সম্পর্কিত একটি সূত্র উদ্ভাবন করেন, যা জুলের সূত্র নামে পরিচিত হয়। যদি তাপকে H, কারেন্টকে I, রেজিস্ট্যান্সকে R এবং সময় কে t দিয়ে প্রকাশ করা হয়, তবে গানিতিক ভাবে লেখা যায়ঃ  ১. H α I2, যখন R এবং t ধ্রুব ২. […]

এম্পিয়ারস সুইমিং রুল

বিদ্যুৎ পরিবাহী তারের মধ্য দিয়ে প্রবাহীত কারেন্টের দিকে যদি কোনো ব্যাক্তি পরিবাহীর উপর এমন ভাবে সাঁতার দেয়, যাতে পরিবাহীর কাছে রাখা কম্পাস চুম্বকের দিকে তার মুখ থাকে, তবে ঐ ব্যাক্তির বাম হাত যেদিকে প্রসারিত হবে, কম্পাস চুম্বকের উত্তর মেরু সেদিকে বিক্ষেপ দেখাবে অর্থাৎ ঐদিকে চুম্বক বলরেখার অভিমুখ হবে।

ম্যাক্সওয়েল কর্ক-স্ক্রু রুল

বৃটিশ পদার্থ বিজ্ঞানী জেমস ক্লার্ক ম্যাক্সওয়েল ১৮৭৩ সালে কর্ক-স্ক্রুর সাহায্যে চুম্বক বলরেখার দিক নির্ণয়ের সূত্র বের করেন। পরিবাহীর যেদিকে কারেন্ট প্রবাহিত হয়, সে দিকে ডান হাতে কর্ক-স্ক্রুকে ঘুরালে বৃদ্ধাঙ্গুলি যেদিকে ঘুরে সেদিকে চুম্বক বলরেখার দিক নির্দেশ করবে।

ফ্লেমিং এর লেফট হ্যান্ড রুল

বাম হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলি, তর্জনী এবং মধ্যমাকে পরস্পর সমকোণে রেখে বিস্তৃত করলে, তর্জনী চুম্বক বলরেখার দিক ও মধ্যমা কারেন্টের দিক নির্দেশ করলে, বৃদ্ধাঙ্গুলি পরিবাহী তারের ঘূর্ণন দিক নির্দেশ করবে। এই সূত্রের সাহায্যে মোটরের ঘূর্ণন দিক বের করা যায়।

এ্যাম্‌পিয়ারস ল

ফ্রান্সের গণিত শাস্ত্রবিদ আদ্রেঁ ম্যারিয়ে এ্যাম্‌পিয়ার কারেন্টবাহী দুটি পরিবাহীরমধ্যকার বলের সূত্র আবিষ্কার করেন। তাঁর নাম অনুসারে এই সূত্রের নামকরণ করা হয়। কারেন্টবাহী দুটি সমান্তরাল পরিবাহীর মধ্যে ক্রিয়াশীল বল পরিবাহী দুইটির দৈর্ঘ্য এবং এদের মধ্যদিয়ে প্রবাহীত কারেন্টের গুণফলের সমানুপাতিক এবং পরিবাহী দুইটির মধ্যকার দূরত্বের ব্যস্তানুপাতিক। \( \begin{align*} &\text{যদি,}\\ &\text{ক্রিয়াশীল বল } […]

কুলম্বের সূত্র

প্রথম সূত্র:একই ধরণের চার্জ পরস্পরকে বিকর্ষণ করে এবং বিপরীত ধর্মী চার্জ পরস্পরকে আকর্ষণ করে। দ্বিতীয় সূত্র:দুইটি বিন্দু চার্জের মধ্যে আকর্ষণ বা বিকর্ষণ বল চার্জ দুইটির পরিমাণের গুণফলের সমানুপাতিক এবং এদের মধ্যে দূরত্বের বর্গের ব্যস্তানুপাতিক। \(\begin{align*} &\text{দুটি বিন্দু চার্জের পরিমাণ }&&= Q_1 ও Q_2,\\ &\text{এদের মধ্যকার দূরত্ব }&&=d\text{ হলে,}\\ &\text{বল }&F […]

কারশফের সূত্র

কারশফের কারেন্ট সূত্র (Kirchhoff’s Current Law): একটি সার্কিটের কোন বিন্দুতে মিলিত কারেন্ট সমুহের বীজগাণিতিক যোগফল সমান। অথবা একটি সার্কিটের কোন বিন্দুতে আগত কারেন্ট ও নির্গত কারেন্ট সমান। কারশফের ভোল্টেজ সূত্র (Kirchhoff’s Voltage Law): কোন বদ্ধ বৈদ্যুতিক নেটওয়ার্কের সকল ই.এম.এফ এবং সকল ভোল্টেজ ড্রপের বীজগাণিতিক যোগফল শূন্য।

সুপার পজিশন থিউরম

কোন লিনিয়ার বাইলেটারাল নেটওয়ার্কে একটি বিন্দুতে প্রবাহিত কারেন্ট বা দুটি বিন্দুতে ই.এম.এফ. এর একাধিক উৎসের কারণে ঐ বিন্দু বা বিন্দুগুলোতে প্রবাহিত আলাদা আলাদা কারেন্ট সমুহের বা ই.এম.এফ. পার্থক্য সমুহের বীজগাণিতিক যোগফল সমান হবে যদি প্রতিটি উৎসকে আলাদা আলাদা ভাবে বিবেচনা করা হয় এবং অন্য উৎস গুলোর প্রতিটি সমমানের ইন্টারনাল রেজিস্ট্যান্সে […]