মাতৃভাষা বাংলায় ট্রিপল ই ইঞ্জিনিয়ারিং

কুলম্বের সূত্র

প্রথম সূত্র:একই ধরণের চার্জ পরস্পরকে বিকর্ষণ করে এবং বিপরীত ধর্মী চার্জ পরস্পরকে আকর্ষণ করে।

দ্বিতীয় সূত্র:দুইটি বিন্দু চার্জের মধ্যে আকর্ষণ বা বিকর্ষণ বল চার্জ দুইটির পরিমাণের গুণফলের সমানুপাতিক এবং এদের মধ্যে দূরত্বের বর্গের ব্যস্তানুপাতিক।

\(\begin{align*} &\text{দুটি বিন্দু চার্জের পরিমাণ }&&= Q_1 ও Q_2,\\ &\text{এদের মধ্যকার দূরত্ব }&&=d\text{ হলে,}\\ &\text{বল }&F & \propto \frac{Q_1Q_2}{d^2}\\ & \text{বা, }&F & = k \frac{Q_1Q_2}{d^2}\\ &\text{এখানে, }&K & = 9\times10^9\text{ [ধ্রুবক]}\\ \end{align*}\)

আপনি আরো পড়তে পারেন

ফ্যারাডের ইলেকট্রোলাইসিস সূত্র

বিখ্যাত বিজ্ঞানী মাইকেল ফ্যারাডে ইলেকট্রোলাইসিসের দুটি সূত্র উদ্ভাবন করেন। প্রথম সূত্র: ইলেকট্রোলাইসিস প্রক্রিয়ায় ইলেকট্রোডের উপর জমা হওয়া পদার্থের পরিমাণ, দ্রবণ বা ইলেকট্রোলাইটের ভিতর দিয়ে প্রবাহিত

থেভেনিন থিউরম

ই.এম.এফ. এর একাধিক উৎস এবং রেজিস্ট্যান্স সমন্বয়ে গঠিত একটি জটিল নেটওয়ার্কের দুটি বিন্দুতে সংযুক্ত একটি লোড রেজিস্ট্যান্সের কারেন্ট একই হবে, যদি লোডটি ই.এম.এফ. এর একটি

সুপার পজিশন থিউরম

কোন লিনিয়ার বাইলেটারাল নেটওয়ার্কে একটি বিন্দুতে প্রবাহিত কারেন্ট বা দুটি বিন্দুতে ই.এম.এফ. এর একাধিক উৎসের কারণে ঐ বিন্দু বা বিন্দুগুলোতে প্রবাহিত আলাদা আলাদা কারেন্ট সমুহের

কারশফের সূত্র

কারশফের কারেন্ট সূত্র (Kirchhoff’s Current Law): একটি সার্কিটের কোন বিন্দুতে মিলিত কারেন্ট সমুহের বীজগাণিতিক যোগফল সমান। অথবা একটি সার্কিটের কোন বিন্দুতে আগত কারেন্ট ও নির্গত

অনুসন্ধান করুন